যৌতুকের দাবিতে অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীকে শারীরিক নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে এক র‌্যাব কর্মকর্তার বিরুদ্ধে।

0
131

আউয়াল হোসাইন,ঢাকা,যৌতুকের দাবিতে অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীকে শারীরিক নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে র‌্যাব কর্মকর্তার বিরুদ্ধে। অভিযুক্ত র‌্যাবের এএসপি নাজমুস সাকিব র‌্যাব সদর দপ্তরে কর্মরত আছেন। সম্প্রতি তার বিরুদ্ধে রাজধানীর রমনা থানায় একটি মামলা করেন ভুক্তভোগী স্ত্রী ইসরাত রহমান।

তিনবছর আগে র‌্যাব কর্মকর্তা নাজমুস সাকিবের সঙ্গে পারিবারিকভাবে বিয়ে হয় মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের কন্যা ইসরাত রহমানের। স্ত্রী ইসরাতের দাবি, বিয়ের পর থেকেই যৌতুকের দাবিতে শুরু হয় শারীরিক নির্যাতন। স্বামীর নির্যাতনে কয়েকবার হাসপাতালেও চিকিৎসা নিতে হয় তাকে।
তারপরও নির্যাতন থামেনি। র‌্যাব কর্মকর্তা স্বামীর বিরুদ্ধে এবারের সন্তান সম্ভাবা স্ত্রীকে অমানুষিক নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে। আহত অবস্থায় ঢাকা মেডিকেলে ভর্তি হন তিনি। প্রতিবাদ করায় দেয়া হয় ক্রসফায়ারের হুমকি।

এ অভিযোগেই বৃহস্পতিবার (০৪ জুন) রমনা থানায় র‌্যাব কর্মকর্তা স্বামীর বিরুদ্ধে মামলা করে নির্যাতিতা স্ত্রী। পুলিশ বলছে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়ার কথা।
রমনা জোন উপ পুলিশ সাজ্জাদুর রহমান বলেন, ইসরাত জাহান নামে একজন এফআরআই দিয়েছেন। অফিসার রিপোর্ট দিলে মামলা হবে যদি ঘটনার সত্যতা পাওয়া যায়।

কোন ধরণের প্রভাবিত না হয়ে নিরপেক্ষভাবে তদন্তের দাবি জানিয়েছেন নির্যাতিতার আইনজীবীর ।
নির্যাতিতার আইনজীবীর ইসরাত জাহান বলেন, একজন পুলিশ কর্মকর্তার কৃতকর্মের দায় পুরো পুলিশ নেবে না। নির্যাতিত নারী সুষ্ঠু বিচার পাবেন।
অভিযুক্ত র‌্যাবের এএসপি নাজমুস সাকিব র‌্যাব সদর দপ্তরের কর্মরত আছেন।
র‍্যাব পরিচালক লে. কর্নেল সারওয়ার বিন কাশেম বলেন, নাজমুস সাকিব ও তার স্ত্রীর পরস্পর অভিযোগের বিষয় আমারা অবগত আছে। এই বিষয়ে যথাযথ ব্যবস্থা নেয়ার কার্যক্রম চলছে।
তবে অভিযোগের বিষয়ে তার সাথে বার বার যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তাকে পাওয়া যায়নি।

💬

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন